মেনু নির্বাচন করুন

মাঠ প্রশাসনের কোভিড ১৯ রিপোর্টিং সিস্টেম

সিস্টেম সম্পর্কেঃ

কোভিড ১৯ আর.এম.এস এর মাধ্যমে সকল বিভাগ মন্ত্রিপরিষদে রিপোর্ট দেওয়ার একটি প্লাটফর্ম যা থেকে সামগ্রিক ভাবে করোনা পরিস্হিতি মনিটরিং সম্ভব হচ্ছে। যার ফলে নিবীড় ভাবে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়া এবং সংশ্লিষ্ট সকলকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া সহজতর হচ্ছে। জেলা-উপজেলা থেকে যে কয়টি রিপোর্ট দেওয়া হয় তাকে সিস্টেমের মাধ্যমে প্রদান করা হয় ।উদ্ভাবিত এই সিস্টেমটি ব্যবহার করে বিভাগীয় পর্যায় থেকে উপজেলা পর্যন্ত মনিটরিং জোরদার এবং কর্মক্ষেত্রে গতিশীলতা বৃদ্ধি পেয়েছে। যার মাধ্যমে প্রশাসনের স্বচ্ছতা আনয়নে সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। সেই সাথে উক্ত রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে সরকার উক্ত উপাত্তের উপর ভিত্তি করে দ্রুত ও কার্যকরী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারছে। 

প্রধান বৈশিষ্ট্যসমূহঃ

  • উর্ধতন কর্মকর্তার দপ্তরের চাহিত রিপোর্ট/রিটার্ণ দ্রুততর সময়ের মধ্যে অধীনস্থ দপ্তর কর্তৃক প্রেরণ সম্ভব হবে।
  • ডিজিটাল সিগনেচারের মাধ্যমে (ডেডিকেটেড ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহৃত হবে) তথ্য পাঠানোর কারণে তথ্যের বিশ্বাসযোগ্যতা সম্পর্কে নিশ্চিয়তা বিধান সম্ভব হবে।
  • ইন্টারনেট বেইজড ওয়েবসাইটের মাধ্যমে রিপোর্ট পাঠনোর সুযোগ থাকার কারণে ২৪/৭ যে কোন স্থান হতে তাৎক্ষনিক রিপোর্ট পাঠানো সম্ভব হবে।
  • রিপোর্ট বা তথ্য আর্কাইভ  এ সংরক্ষণ করা সম্ভব হবে।
  • ডাটা রিয়েল টাইম প্রসেসিং সিস্টেমে আপলোড এবং প্রেরণের কারনে তথ্য পাঠানোর তারিখ এবং সময় দেখা যাবে।
  • কোন কোন দপ্তরের রিপোর্ট পেন্ডিং রয়েছে তা এক নজরে দেখা যাবে।
  • রিপোর্টসমূহ দ্রুত কম্পাইল করে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার নিকট উপস্থাপন করা সম্ভব হবে।

সুবিধাসমূহ

  • পেপারলেস অফিস গঠনে এ সিস্টেম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।
  • ম্যানুয়াল ডাকে অথবা জারীকারক/পিয়নের মাধ্যমে তথ্য প্রেরণের প্রয়োজন হবে না।
  • রিপোর্ট হারিয়ে যাবার কোন সম্ভাবনা থাকবে না।
  • নিজস্ব সিস্টেমে তথ্য আদান-প্রদান হওয়ার কারণে তথ্য লিক বা পাচার হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না।
  • দুর্যোগকালীন সময়ে অথবা অন্য কোন আপদকালীন সময়ে যে কোন স্থানে বসে রিপোর্ট চেক করা যাবে।
  • যে কোন বিষয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত প্রদান করা সম্ভব হবে।
  • যেকোন গবেষনার কাজে ডাটা দ্রুত খুজে বের করতে সহায়তা করবে।

     

URL: মাঠ প্রশাসনের কোভিড ১৯ রিপোর্টিং সিস্টেম